জয়পুরহাট জেলা আওয়ামীলীগের ২ গ্রুপের দ্বন্দ্ব মেটেনি!!

কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে দফায় দফায় বৈঠকের পরও দ্বন্দ্ব না মেটার আভাস দুই গ্রুপের কর্মকাণ্ডে।কিছু ব্যাপারে দেখা গেছে দুই পক্ষ থেকে দুই রকম বক্তব্য আসছে।

৩ নেতার বহিস্কারের ব্যাপারে এক পক্ষের বক্তব্য বহিস্কার আদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে। আরেক পক্ষের দাবি,জেলার তিন নেতাকে বহিষ্কারের ব্যাপারে খতিয়ে দেখে তদন্ত করার দায়িত্ব জাহাঙ্গীর কবির নানক ও খালিদ মাহমুদ চৌধুরীকে দিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

এক পক্ষের দাবি,ক্ষেতলাল উপজেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে ওই কমিটির ১ নং সিনিয়র সহ-সভাপতি তাইফুল তালুকদারকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। আরেক পক্ষের দাবি,ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেবার সিদ্ধান্ত দেয় আব্দুল মজিদ মোল্লাকে।

এক পক্ষের ভাষ্য,তিন মাসের ভেতর বর্তমান কমিটি ভেঙ্গে দেবার আশ্বাস পেয়েছে আরেক পক্ষের ভাষ্য,এই কমিটির অধীনেই আগামী নির্বাচন।

এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ থেকে প্রেস রিলিজ আসলে প্রকৃত তথ্য পাওয়া যাবে।

গতকাল আওয়ামীলীগের সভানেত্রীর ধানমণ্ডির কার্যালয়ে জরুরি বৈঠকে জয়পুরহাট জেলা আওয়ামীলীগের ২ গ্রুপের দ্বন্দ্ব ভুলে একত্রে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।কিন্তু তার কথামত একত্রে কাজ করবে কিনা দুই গ্রুপ তা সময়ই বলে দিবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *